রাশিয়া বিশ্বকাপে ৭ মুসলিম দেশ

হিসেব বলছে, আর মাত্র ৩০ দিন পরই অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপের ২১তম আসর। ৩২ দলের অংশগ্রহণে রাশিয়ায় জমবে তারকা মেলা। এবারে আসরে ৩২ দলের মধ্যে খেলার সুযোগ পেয়েছে সাতটি মুসলিম দেশ।

চলুন দেখে নেয়া যাক দলগুলো খুঁটিনাটি বিষয়াদি।

মিশর

১৯৩৪ ও ১৯৯০ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায় মিশর। আর এবার মোহাম্মদ সালাহ’র হাত ধরে তৃতীয়বারের মতো খেলার সুযোগ পাচ্ছে মুসলিম প্রধান দেশটি।

বর্তমানে দলটিতে একাধিক তারকা খেলোয়াড় রয়েছে। যারা মিশরসহ বিশ্বের বিভিন্ন লীগে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন। যাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সালাহ, সাঈদ, আহমদ হাসান ও মাহমুদ।

নাইজেরি

১৯৯৪ বিশ্বকাপে প্রথমবার নাম লেখায় নাইজেরিয়া। তিন ম্যাচে দুই জয়ে সবাইকে চমকে দিয়ে গ্রুপ টেবিলে শীর্ষস্থান অর্জন করে দলটি। যদিও সেখানে নক আউট পর্বে কাটা পড়ে নাইজেরিয়া। এরপর ৯৮’র বিশ্বকাপেও একই দশা। গ্রুপ পর্ব পাড়ি দিয়ে নকআউটে ডেনমার্কের কাছে ধূলিসাৎ হয়ে বিদায় নেয় বিশ্বকাপ থেকে। একই অবস্থা ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপেও। তবে এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে দলটি।

দলটির বেশ কয়েকজন নামি-দামি তারকা ফুটবলার রয়েছেন। যারা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বিশ্বের বিভিন্ন ক্লাবে। যাদের অন্যতম চেলসি-তুরিন ও ইন্টার মিলানের সাবেক মিডফিল্ডার ওবি মিকেল। বর্তমানে ওবি নাইজেরিয়ার অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বপালকর করছেন। এছাড়া গোলরক্ষক ভিনসেন্ট এনইয়ামার কথা না বললেই নয়।  দেশের পাশাপাশি ইসরাইলের একটি ক্লাবের হয়ে খেলছেন তিনি।

ইরান

১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০৬ ও ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায় ইরান।  দুঃখজনক ব্যাপার হলো, চারবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেলেও এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্ব টপকাতে পারেননি দলটি।

তারপরও এবারে বিশ্বকাপে অঘটন ঘটাতে প্রস্তুত ইরান। নতুন পুরাতনদের নিয়ে ভালো কিছু করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধদলটি।

তিউনিসিয়া

ইরানের মতো মুসলিম প্রধান দেশ তিউনিসিয়াও মোটে পাঁচবার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়। ১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০২ ও ২০০৬ বিশ্বকাপে খেলে দেশটি।  দলটির সর্বোচ্চ অর্জন ১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে মেক্সিকোর বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে জয়।

মরক্কো

১৯৭০ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো খেলেছিল মরক্কো। এরপর ১৯৮৬, ১৯৯৪ ও ৯৮’র ফ্রান্স বিশ্বকাপে খেলে দলটি। সে বছর গ্রুপ পর্বে তিন ম্যাচে ১ জয় ১ হার আর ১ ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় মরক্কোবাসীকে। দুই দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেল মরক্কো। ‘সি’ গ্রুপে কোত দি ভোয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে রাশিয়ার টিকিট হাতে পায় মরক্কো।

 সেনেগাল

২০০২ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপে জায়গা পায় সেনেগাল। ওই আসরের গ্রুপ পর্বে ফ্রান্সকে হারিয়ে তাক লাগিয়ে দেয় দেশটি। পরের দুই ম্যাচে ডেনমার্ক, উরুগুয়ের সঙ্গে ড্র করে চলে যায় নকআউট পর্বে। যেখানে সুইডেনকে ২-১ হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টারে চলে যায় সেনেগাল। এরপর দীর্ঘদিন দেখা যায়নি সেনেগালকে। অবশেষ দীর্ঘ ১৬ বছর পর রাশিয়া বিশ্বকাপে নাম লেখাল পশ্চিম আফ্রিকার দেশটি।

সৌদি আরব

রাশিয়া বিশ্বকাপে স্বাগতিকদের সঙ্গে উদ্বোধনী ম্যাচ খেলবে সৌদি আরব। ১৯৯৪ সালে বিশ্বকাপে অভিষেক হওয়া দেশটি এ নিয়ে চারবার বিশ্বকাপে খেলার গৌরভ অর্জন করে।

Print Friendly, PDF & Email