দেবযান শিশুতীর্থের রবীন্দ্রজয়ন্তীর আলোচনায় বক্তারা রবীন্দ্রনাথ আমাদের বাংলা সাহিত্যের অস্তিত্বের ঠিকানা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ বীরভুমস্থ কলহপুর গ্রামে দেবযান শিশুতীর্থের উদ্যোগে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৮তম জন্ম জয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুমন পতির সভাপতিত্বে গত ১২ মে সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। এতে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন স্কুলের শিক্ষক কবি ও সাহিত্যিক মতিয়ার রহমান, চট্টগ্রাম থেকে আগত ইতিহাস গবেষক সোহেল মোঃ ফখরুদ্দীন, পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট কবি তারকনাথ চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম থেকে আগত কবি আসিফ ইকবাল, দেবযান শিশুতীর্থের শিক্ষক দয়াল গোস্বামী, তনুশ্রী পতি মেহেরা, পুঁজা দাশ, রবিন চ্যাটার্জী, শুভ নন্দী, দেবাশীষ রাজমল্ল প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন রবীন্দ্রনাথ বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ দিকপাল। বাংলা সাহিত্যের প্রতিটি শাখা প্রশাখায় রবীন্দ্রনাথের রয়েছে স্বগৌরব উপস্থিতি। রবীন্দ্রনাথ বাংলা সাহিত্যে বিশ্ব সাহিত্যের অনন্য মর্যাদায় নিয়ে গেছেন। রবীন্দ্রনাথের কাব্য ও সাহিত্য চর্চা আমাদের আলোর পথ দেখায়। সঠিক ও শুদ্ধ রবীন্দ্র চর্চার মাধ্যমে আমাদেরকে মননশীলতা চর্চার অধিকারী হতে হবে। শিশু সাহিত্যেও রবীন্দ্রনাথ অনন্য অসাধরণ সাহিত্য কর্ম রেখে গেছেন। বর্তমান প্রজন্মের শিশু কিশোরদের প্রতিভা বিকাশে রবীন্দ্র চর্চা খুব প্রয়োজন। সভা শেষে চট্টগ্রাম থেকে আগত কবি সাহিত্যিকদের দেবযান শিশুতীর্থের পক্ষ থেকে রবীন্দ্র সম্মাননা সনদ ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email