কর্ণফুলীতে কোরআন পাঠ হামদ্-নাত ও আযান প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ রমজানের শিক্ষা নিয়ে মানুষ ব্যাক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয়

কর্ণফুলি প্রতিনিধিঃ৯জুন

কর্ণফুলী উপজেলা, বড়উঠান মৌলভী বাড়ীতে “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” ব্যবস্থাপনায় দ্বিতীয় বারের মত পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ৮ জুন শুক্রবার কোরআন তেলাওয়াত, হামদ্-নাত ও আযান প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও ইফতার মাহফিল ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান’র সভাপতিত্বে ও মিনহাজ উদ্দিন খানের পরিচালনায় অনুষ্টিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে কর্ণফুলী উপজেলার চেয়ারাম্যান দক্ষিন জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফারুক চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” উপদেষ্টা মোহাম্মদ খোরশেদুল আলম খান, সমাজ সেবক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও লায়ন ট্রেজারার মোছলেহ উদ্দিন খান এমদাদ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্য উপস্থিত ছিলেন, ফাউন্ডেশন’র ভাইচ-চেয়ারাম্যান ও ইর্ষ্টান রিফাইনারী সাবেক কর্মর্কতা মোহাম্মদ গোলাম ফারুক, সচিব মোঃ রেজাউল হক খান, ফাউন্ডেশন’র উপদেষ্টা ও ব্যাংকার আলহাজ্ব মোহাম্মদ জিয়াউল হক খান, কর্ণফুলি উপজেলার আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও ফাউন্ডেশন’র উপদেষ্টা মোঃ মেজবাহ উদ্দিন খান, ইউপি মেম্বার সাজ্জাদ হোসেন খান সুমন, সাইফুল্লা খান, কুতুব উদ্দিন খান, এরশাদ উল্লাহ খান, মাওলানা নেজাম উদ্দিন খান, ব্যাংকার আলহাজ্ব মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন খান, মেহরাফ হোসেন খান, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইদ্রীস খান, মোঃ মিজানুল হক খান, ইফতেখারুল হক খান, মোঃ মফিজুর রহমান চৌধুরী, আইটি বিশেষজ্ঞ সহিদুজ্জামান চৌধুরী রাশেল, লিয়াকত হোসেন খান খোকন, এহছানুল হক খান, এহতেশামুল হক খান, মাইমুনুল ইমলাম খান, তৌফিক আহসান বায়জীদ ।

প্রথম রমজান থেকে সম্মানিত বিচারক হিসাবে প্রতিযোগিতার দায়িত্ব পালন করেন বড়উঠান মৌলভী বাড়ী ওয়াইজ বিবি জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জমির উদ্দিন ছাহেব, মাওলানা মুহাম্মদ মনছুরুলহক খান, হাফেজ মুহাম্মদ তনজির হোসাইন, শিক্ষার্থী জামেয়া আহম্মদীয়া সুন্নিয়া আলীয়া মাদ্্রাসা, মাওলানা মুহাম্মদ আশফাকউদ্দোল্লা খান ফারুক, ফাউন্ডেশন’র উপদেষ্টা ও ব্যাংকার আলহাজ্ব মোহাম্মদ জিয়াউল হক খান, আ.ন.ম হাবিবুল হক খান, মাওলানা মুহাম্মদ ইছাক, সেক্রেটারী গাউছিয়া তাহেরীয়া তানিমুল হক সুন্নি মাদ্্রাসা, হাফেজ মোহাম্মদ ফজরুল রহমান খান, সম্মানিত বিচারকদের সার্বিক তত্ববধানে ছিলেন ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান ও পরিবর্তন চট্টগ্রামের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান।

কোরআন তেলাওয়াতে ১ম স্থান গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র মোহাম্মদ খোরশেদ আলম, ২য় স্থান মোঃ সাজ্জাদ আলম, বড়উঠান গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র, ৩য় স্থান মোঃ আজম উদ্দীন, উত্তর বন্দর গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসা, ও মোঃ সাজেদ উল্লাহ সায়েম, দৌলতপুর বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়’র ছাত্র, হামদ্-নাতে ১ম স্থান গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র মোহাম্মদ খোরশেদ আলম, ২য় স্থান মোঃ সাজ্জাদ আলম, বড়উঠান গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র, ৩য় স্থান মোঃ জাহেদুল ইসলাম, বড়উঠান, হাজী সোলতান আহমদ সুন্নি মাদ্্রাসা ও মোঃ ওয়ালিফ উদ্দিন খান, আনোয়ারা কলেজের ছাত্র,ও আযান-এ ১ম স্থান মোঃ সাজ্জাদ আলম, বড়উঠান গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র, ২য় স্থান হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসার ছাত্র মোহাম্মদ খোরশেদ আলম, ৩য় স্থান মোঃ আজম উদ্দিন, উত্তর বন্দর গাউছিয়া হাশেমী সুন্নি মাদ্্রাসা,ও মাইছুর হাবিব ছাআদ, দৌলতপুর বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্র, বড়উঠান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র মোঃ মহিউদ্দিন খান মোস্তাকিম একমাত্র প্রতিবন্ধী শিশু কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা অংশ গ্রহন করে এবং ৪র্থ স্থান অধিকার করে।

প্রধান অতিথি বলেন, মাসব্যাপী রোজা রাখা এবং রোজার বিধান মেনে চলার মধ্য দিয়ে মানুষ পরিপূর্ণতা লাভ করতে পারে। রমজানের শিক্ষা নিয়ে মানুষ ব্যাক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয় জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে নিজেদের পরিচালিত করলে সমাজ থেকে সকল দুর্নীতি জুলুম অন্যায়, এতিমদের হকসহ সকল মন্দ কাজের অবসন ঘটবে। রোজার শিক্ষায় ও অলি আল্লাহদের পথ অনুসরন করলে সমাজে বিশৃঙ্খলা, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে।

তিনি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজের কথা উল্লেখ করেন এবং ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান’র মহান উদ্যোগ ও মহৎ উদ্দেশ্যের প্রশংসা করেন। তিনি “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র ও এলাকাবাসী ঐতিহাসিক দেয়াং পাহাড়ে আউলিয়াদের নিদর্শন বিভিন্ন অলৌকিক ঘটনাবলীর স্থানটি সংরক্ষণ, মাইজভান্ডারী আধ্যাত্মিক রিসার্চ সেন্টার ও এই পবিত্র স্থানটি উম্মুক্ত করার দাবির প্রতি সমর্থন জানান। “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” এই ধরনের ধর্মীয় প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রশংসা করেন।

“সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান সভাপতির বক্তব্যে- বিশ্ব অলি শাহানশাহ্ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারি বাণী দিয়ে শুরু করেন। হালাল খাও, নামাজ পড়ো, আল্লাহ আল্লাহ জিকির কর। সব সমস্যা মিটে যাবে। রমজান মানুষকে সততা, ত্যাগ, সংযম মানবিকতা শিক্ষাদেয়। তিনি মদীনাতুল আউলিয়া খ্যাত চট্টগ্রাম’র ঐতিহাসিক দেয়াং পাহাড়ে আউলিয়াদের নিদর্শন সংরক্ষনের জন্য কোরিয়ান ইপিজেড এর কাছে দাবী জানান।

Print Friendly, PDF & Email