মাউশির প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ৪র্থ ব্যাচের কর্মশালা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে হলে মেধাবী প্রজন্ম চাই

সেসিপ কর্তৃক আয়োজিত মাধ্যমিক স্তরের প্রতিষ্ঠান প্রধানদের জন্য শিক্ষাক্রম বিষয়ক ৪র্থ ব্যাচের ৬ দিনব্যাপি কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ গড়তে হলে মেধাবী প্রজন্ম তৈরি করতে হবে। আগামীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একটি বিজ্ঞানমনস্ক আধুনিক প্রজন্ম গড়তে ব্যর্থ হলে আমাদের সকল শ্রম ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে। গতকাল নগরীর কাজেম আলী স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাউশি’র চট্টগ্রাম প্রধান বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী আরো বলেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজেম আলী স্কুল এন্ড কলেজের উন্নয়ন আমাদের স্বপ্নের দুয়ার খুলে দিয়েছে। পরিচালনা কমিটির যোগ্য নেতৃত্বে এখানে এক নীরব বিপ্লব সংঘটিত হয়েছে। তিনি বলেন, এবারের কর্মশালার অভিজ্ঞতাগুলো অবশ্যই স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে প্রয়োগ করবেন।
মাউশি’র উপ পরিচালক বিশিষ্ট কথাশিল্পী ড. গোলাম মাওলার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চ সম্পাদক ও কাজেম আলী স্কুল কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি সৈয়দ উমর ফারুক। মাউশির সহকারী পরিচালক মোঃ মোশাররফ হোসেনের সঞ্চালনায় কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন ফেনী দাগনভুঁইয়া সরকারি মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোবারক হোসেন, ফেনী জেলা শিক্ষা অফিস গবেষণা কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান।
বিশেষ অতিথি সৈয়দ উমর ফারুক বলেন, ২০৪১ সালের যে বাংলাদেশের স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী দেখেছেন তা পরিপূর্ণ বাস্তবায়ন করতে হলে এবারের কর্মশালাগুলো অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। আধুনিক বিজ্ঞান মনস্ক প্রজন্ম তৈরি করতে হলে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের প্রাচীন ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে নতুন নতুন ধারণা গ্রহণ করতে হবে। সেসিপ এই কর্মশালার মধ্য দিয়ে নব দিগন্ত উম্মোচন করেছে, আমাদের আগামী প্রজন্ম এতে অনেক বেশী উপকৃত হবে।
প্রশিক্ষার্থী মোঃ হাফিজুর রহমান, নুর নাহার বেগম ও মোঃ কামরুল ইসলাম কর্মশালার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

Print Friendly, PDF & Email