চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে আহাদুল নামে এক যুবককে খুন করার দায়ে পাঁচ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে দশ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয়মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, একই গ্রামের তোহর আলীর ছেলে দবির (৩৯), মৃত আবু বক্করের ছেলে আকালু (৩৫), মৃত ভোগা তেলীর ছেলে এরফান আলী টিপু (৬১) এবং এরফান আলী টিপুর দুই ছেলে হামেদ (৪১) ও রুমেদ (৩৮)। নিহত আহাদুল হচ্ছেন (৩০) গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর দক্ষিণ পুকুর গ্রামের দুখু মন্ডলের ছেলে।
আজ বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শওকত আলী এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় আদালতে দণ্ডিত পাঁচজনের মধ্যে দবির, আকালু ও এরফান আলী টিপু উপস্থিত ছিলেন। এই মামলায় পলাতক রয়েছেন, এরফান আলী টিপু’র দুই ছেলে হামেদ ও রুমেদ।
এদিকে দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় একই মামলার অপর আট আসামিকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন আদালত।
সরকারি কৌসুলী আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, জমিজমা ও পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জেরে ২০০৯ সালের ১৬ অক্টোবর রাতে গোমস্তাপুরের ভাগলপুর গ্রামে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হন আহাদুল। এ ঘটনায় নিহতের শ্বশুর গোমস্তাপুরের ভাগলপুর গ্রামের মোঃ শামসুল পরদিন গোমস্তাপুর থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোমস্তাপুর থানার তৎকালীন ওসি বাবর হোসেন ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর আদালতে ১৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। সাক্ষ্য, প্রমাণ ও দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত বুধবার দুপরে মামলার রায় ঘোষণা করেন। আসামি পক্ষে ছিলেন আ্যাড. নুরুল ইসলাম সেন্টু।

Print Friendly, PDF & Email