হিজরি নববর্ষ ১৪৪০ কে স্বাগত জানিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ছাত্রসেনার জমায়েত ও স্বাগত র‌্যালি-

১ মহররম সাধারণ ছুটি এবং জাতীয়ভাবে
হিজরি নববর্ষ উদযাপনের দাবি-

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তরের উদ্যোগে ১ মহররম সাধারণ ছুটির ঘোষণা ও জাতীয়ভাবে হিজরি নববর্ষ উদযাপনের দাবিতে আন্দরকিল্লা চত্বরে জমায়েত ও স্বাগত র‌্যালি আজ ১১ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩ টায় অনুষ্ঠিত হয়। স্বাগত র‌্যালি পূর্ব জমায়েতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা মহানগর উত্তর ছাত্রসেনার সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। স্বাগত র‌্যালি প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক মুহাম্মদ বাবর আলী ও সচিব আবু সায়েম মুহাম্মদ কাইয়ুমের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় প্রচার সচিব জননেতা রেজাউল করিম তালুকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সাধারণ সম্পাদক যুবনেতা হাবিবুল মোস্তফা সিদ্দিকী, যুবনেতা শরীফুল ইসলাম চৌধুরী। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জননেতা রেজাউল করিম তালুকদার বলেন, মহানবী (দ.)’র হিজরত স্মারক হিজরি নববর্ষ মুসলিম মিল্লাতের চেতনার প্রতীক। একজন মুসলমানকে পুরো বছরের ধর্মীয় কর্তব্যানুভূতি জাগ্রত করার শিক্ষা দেয় হিজরি বর্ষ। হিজরি সন পালন প্রত্যেক মুসলমানদের উপর অত্যাবশ্যকীয় কর্তব্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, কুরআনুল করীম ও হাদীস শরীফে হিজরি সন পালন করার কথা এসেছে। ফিকহের কিতাবে হিজরি সন পালন করাকে ফরযে কিফায়া বলা হয়েছে। এ সনের সাথে সম্পৃক্ত অনেক আবশ্যকীয় ইবাদত। রোযা, হজ্ব, শবে বরাত, শবে কদর, শবে মেরাজ, ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.), ইয়াওমে আশুরা সহ অসংখ্য দিবস ও ইবাদত হিজরি সনের সাথে সম্পৃক্ত। তাই, এ মহিমান্বিত সনের সূচনা দিবসটি পালন করা মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব। ছাত্রনেতা ফরিদুল ইসলাম বলেন, অন্যান্য নববর্ষ উপলক্ষে সাধারণ ছুটির ঘোষণা থাকলেও হিজরি সনের সূচনা তারিখে সাধারণ ছুটির ঘোষণা না থাকায় হতাশ এদেশের সংখ্যাগরিষ্ট মুসলিম জনতা। তিনি মুসলিম চেতনা ও ঐতিহ্যের প্রতীক হিজরি সনের সূচনা তারিখে সাধারণ ছুটির ঘোষণা ও জাতীয়ভাবে হিজরি নববর্ষ উদযাপনে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
র‌্যালিপূর্ব জমায়েতে বক্তব্য রাখেন মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, গোলাম মুস্তফা, এহসানুল হক, ফোরকান রেজা, এরশাদুল করিম, শাহাদাত মিয়া, বেলাল রেজা, জিয়াউদ্দিন রায়হান, সাব্বির হোসাইন, কাজী আরাফাত, মাহমুদুল ইসলাম, নাসের প্রমুখ। পরে হিজরি নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালি নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে চট্টগ্রাম লালদীঘি ময়দানে এসে শেষ হয়।

Print Friendly, PDF & Email