হিজরি বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে সৈয়দ নাজির আলী শাহ্ কলন্দরী (মু.জি.আ.)


হিজরি সন মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে
আলোকবর্তিকা হয়ে জাগরিত আছে

বিশ্বনবি হযরত মুহাম্মদ (দ.) এর হিজরতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে হিজরি সনের শুভ সুচনা। হিজরি বছরের প্রথম মাস মহররম। বাংলা ও ইংরেজি নববর্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকে, আরবি নববর্ষের অনেক গুরুত্ব ও তাৎপর্য থাকা সত্বেও উল্লেখ করার মতো কোন কর্মসূচী পালন করা হয়না বললেই চলে। নতুন বছরের প্রথম রাত ও দিন বিগত দিনের গুণাহ মাফ এবং আগামী দিনের কল্যাণ লাভের মর্যাদাপূর্ণ সময়। হযরত মুহাম্মদ (দ.) এর ত্যাগ ও কুরবানীর ঐতিহাসিক স্মৃতি স্মারক হিজরি সন। ইসলামের প্রচার প্রসার এবং বিজয়কেতন উড্ডিনে হিজরি সনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অত্যাধিক। হিজরি সন মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে আলোকবর্তিকা হিসেবে জাগরিত হয়ে আছে। আমিরুল মোমেনিন হযরত ওমর ফারুক (রা.) এই সনের প্রবর্তন শুরু করেন। ইসলামী বিশ্ব ইতিহাসে হিজরি সন গণনা একটি ঐতিহাসিক ইতিহাস। কাঞ্চননগর শাহ সুফি দরবার ময়দানে দাওয়াতে সুফি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম জেলা শাখার হিজরি নববর্ষবরণ ও শোহাদায়ে কারবালার মাহফিলে অতিথিরা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। হিজরি নববর্ষবরণ উপলক্ষ্যে দাওয়াতে সুফি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম শাখার উদ্যোগে (১১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার) আজ বাদে আছর জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া দরবার শরীফ অভিমুখে চন্দনাইশ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা হতে স্বাগত র‌্যালী নিয়ে দরবার শরীফ কমপ্লেক্সে মিলিত হয়ে দরবার শরীফ থেকে পুনরায় র‌্যালী বের হয়ে আরকান সড়কের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিন শেষে আবার দরবার শরীফে এসে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আনজুমান এ জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনায় মাওলানা আলী আহমেদ ও মাওলানা রেজাউল করিমের সঞ্চালনায় ১০দিন ব্যাপি পবিত্র শোহাদায়ে কারবালা মাহফিল ও হিজরি বর্ষবরণ উদ্বোধনী দিনে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মধ্য প্রদেশ ভারতের খানকায়ে কলন্দরীয়া, ইন্দোর, এমপির পীর সাহেব হযরত ছৈয়্যদ নাজির আলী শাহ্ কলন্দরী (মু.জি.আ.)। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন দরবারে জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া’র পীরে কামেল হযরতুলহাজ্ব আল্লামা শাহসুফি সৈয়্যদ মোহাম্মদ আলী মাঃজিঃআঃ। হিজরি বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মির্জাখীল দরবার শরীফের শাহ্জাদা আওলাদে জাঁহাগির হযরত মাওলানা মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন জাঁহাগিরি (মু.জি.আ.)। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইস্পাহানি মির্জা স্কুল এন্ড কলেজ এর প্রধান ধর্মীয় শিক্ষক আলহাজ্ব মাওলানা মুফতি আলী আহমেদ, বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন আহলে সুফ্ফা সুন্নিয়া দরসে নিজামী মাদরাসার সুপার মাওলানা মুফতি মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাহাঁগিরিয়া ছুফিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসার সহ সুপার শাহজাদা মাওলানা মোহাম্মদ মনজুর আলী, আনজুমান ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক শাহজাদা মাওলানা মতি মিয়া মনসুর, চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুর রহিম বাদশা, কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল আবছার ও আলহাজ্ব আবদুল শুক্কুুর কোম্পানী প্রম্খু।

Print Friendly, PDF & Email