গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক), গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে।

১৬ সেপ্টেম্বর রবিবার সকাল ১১টার দিকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জিএমপির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উদ্বেধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে আয়োজন করা হয় বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের। গাজীপুরের পুলিশ লাইনস্ মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠান থেকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার কয়েক হাজার মানুষ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে কথা বলেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান ও লিপি আক্তার নামের একজন পোশাক কর্মী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশকে উন্নত করতে হলে দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা দরকার। এসময় তিনি সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নাশকতা প্রতিরোধ, মাদক নির্মূলসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে পুলিশের সফলতার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের নতুন কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, দেশের অন্যতম শিল্প নগরী গাজীপুরের জনগণের জান-মালের সার্বিক নিরাপত্তাসহ জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমন, মাদকমুক্ত গাজীপুর গঠন এবং জাতির পিতার সোনারবাংলা গঠনে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিটি সদস্য আজ অঙ্গীকারবদ্ধ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বের হয় একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি। র‌্যালিটি পুলিশ লাইনস্ থেকে বের হয়ে ঢাকা-গাজীপুর সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে পুলিশ সদস্য, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী এডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক, নারী ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, গাজীপুর সিটি মেয়র মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ডঃ দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ডঃ হারুন অর রশিদ উপস্থিত ছিলেন।

সিটি কর্পোরেশনের পাল্লী বিদ্যুতের পশ্চিমে নলজানি এলাকাস্থ জিএমপির প্রধান কার্যালয়টিতে করা হয়েছে আলোকসজ্জা। এছাড়া গাজীপুর চান্দনা চৌরাস্তা জাগ্রত চৌরঙ্গী মোড় ও সড়ক দীপগুলো ডিজিটাল ব্যানার দিয়ে বর্ণাঢ্য সাজে সজ্জিত করা হয়। ব্যানারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপি’র ছবি এবং পুলিশের নানা সেবার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। জিএমপি’র প্রধান কার্যালয়টি আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে। এ ছাড়া সন্ধ্যায় পুলিশ লাইনস্ মাঠে আয়োজন করা হয়েছে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। অনুষ্ঠানে দেশের খ্যাতনামা শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করবেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান জানিয়েছেন, সিটি কর্পোরেশনের আটটি থানা এলাকা এবং ১ হাজার ১৫২ জনের লোকবল নিয়ে যাত্রা শুরু করছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। থানাগুলো হলো- সদর থানা, বাসন থানা, কোনাবাড়ি থানা, কাশিপুর থানা, গাছা থানা, পূবাইল থানা, টঙ্গী পূর্ব থানা এবং টঙ্গী পশ্চিম থানা।

Print Friendly, PDF & Email