Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

সিআরবি’র অনুষ্ঠানে শহীদ জায়া মুশতারী শফি স্বাধীনতা ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী’র অবদান অবিস্মরণীয়

চট্টগ্রামে যুব বিদ্রোহসহ আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামে যারা জাতিকে আন্দোলন-সংগ্রামে অনুপ্রাণিত করেছেন তাদের মধ্যে বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী ছিলেন অন্যতম। মাস্টারদা সূর্যসেন’র সহযাত্রী এই ব্যক্তিত্ব আজীবন মানুষের অধিকার আদায়ে সংগ্রাম করে গেছেন। কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার বাংলাদেশ (সিআরবি)’র উদ্যোগে অদ্য ১০ জানুয়ারি চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী’র ১০৯তম জন্মোৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শহীদ জায়া মুশতারী শফি উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ, চট্টগ্রাম’র সভাপতি প্রফেসর ডাঃ এ.কিউ.এম সিরাজুল ইসলাম’র সভাপতিত্বে ও সংগঠক নোমান উল্লাহ বাহার’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে স্মৃতিচারণপূর্বক আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন-চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সিআরবি’র চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক এড. সৈয়দ কামাল উদ্দিন, আইনজীবী সমিতি, চট্টগ্রাম’র সাবেক সহ-সভাপতি এড.নুরূল আলম, জন্মোৎসব উদ্যাপন পরিষদ’র সম্পাদক তাপস হোড়, মওলানা ভাসানী ফাউন্ডেশন’র সভাপতি ও শ্রমিক নেতা ছিদ্দিকুল ইসলাম, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন’র চট্টগ্রাম মহানগর সম্পাদক প্রকৌশলী শাহিন চৌধুরী প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ভোক্তা অধিকার-সিআরবি’র মহাসচিব নক্শাবিদ কে.জি.এম সবুজ।
অনুষ্ঠানে অতিথিরা আরো বলেন, বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী তাঁর সংগ্রামী কর্মের জন্য মানুষের মাঝে বেঁচে থাকবেন। বিপ্লবের প্রেরণা জোগাবেন পরবর্তী প্রজন্মের মাঝে। আমৃত্যু তিনি বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে অংশ নিয়ে উৎসাহ জুগিয়ে গেছেন নিরন্তর। অন্যায়ের প্রতিবাদ জানিয়েছেন উচ্চকণ্ঠে। দেশ ও জাতি গঠনে তাঁর অবদান অবিস্মরণীয়। বিনোদ বিহারী চৌধুরী বিপ্লবের মন্ত্রে দিক্ষিত হয়ে সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলেন মাস্টারদার নেতৃত্বে। যুব বিদ্রোহের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রামকে তিন দিনের জন্য স্বাধীন রেখেছিলেন তাঁরা। পরবর্তী সময়ে তাঁদের বিপ্লবের পথ ধরেই আসে একাত্তরের মুক্তিসংগ্রাম। নতুন প্রজন্মকে বিপ্লবী বিনোদ বিহারী জীবনাদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে সমৃদ্ধ জাতি গঠনের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠান শেষে চট্টগ্রাম জেলা পিপি এড. এ.কে.এম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীকে সভাপতি ও এড. সৈয়দ মোঃ কামাল উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট সিআরবি, চট্টগ্রাম মহানগর শাখা ঘোষণা করা হয়। উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানের প্রারম্ভে বিবেকানন্দ সংগীত নিকেতনের ক্ষুদে শিল্পীরা উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন।

Print Friendly, PDF & Email