Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ব্যাটিং বিপর্যয়ের পরও ঢাকার চ্যালেঞ্জিং পুঁজি

১২৫ রানের মধ্যে নেই ৭ উইকেট। তখনও ইনিংসের ৩১ বল বাকি। ঢাকা ডায়নামাইটস ছিল অলআউট হয়ে যাওয়ার শঙ্কায়। সেখান থেকে ৭ উইকেটে ১৭৩ রানের পুঁজি সাকিব আল হাসানের দলের।

লোয়ার অর্ডারের নুরুল হাসান আর মোহাম্মদ নাঈমের ব্যাটে এমন চ্যালেঞ্জিং পুঁজি গড়তে পেরেছে ঢাকা। তার আগে দুর্দান্ত এক হাফসেঞ্চুরি করেন রনি তালুদকার।

ওপেনিংয়ের ঝড়ের সূচনাটা করেছিলেন সুনিল নারিন। মাত্র ৪ রানে হযরতউল্লাহ জাজাই ফেরার পর ছোটখাট একটা ঝড় তুলেছিলেন তিনি। ২১ বলে ২টি করে চার ছক্কায় ২৫ রান করেন সাজঘরে ফেরেন ক্যারিবীয় এই অলরাউন্ডার।

তবে ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সঙ্গে দায়িত্বটাও পালন করেছেন রনি তালুকদার। ৩৪ বলে ৫ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ৫৮ রান করেন তিনি। এরপর সাকিব আল হাসান ১৭ বলে ২৩ করে আউট হলে দ্রুত আরও কয়েকটি উইকেট হারিয়ে ফেলে ঢাকা।

১২৫ রানে ৭ উইকেট হারানো দলকে টেনে তোলার দায়িত্ব নেন লোয়ার অর্ডারের নুরুল হাসান আর মোহাম্মদ নাঈম। ১০ বলে ১ ছক্কায় ১৮ রানে অপরাজিত ছিলেন নুরুল। ২৩ বলে ১টি করে চার ছক্কায় হার না মানা ২৫ রান আসে নাঈমের ব্যাট থেকে।

তাসকিন আহমেদ পেয়েছেন ৩ উইকেট। শুরুতে দুর্দান্ত বোলিং করলেও শেষ ওভারে এসে বেশি রান খরচ করে ফেলেন তিনি। সবমিলিয়ে ৪ ওভারে খরচা ৩৮ রান।

Print Friendly, PDF & Email