Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

তরুণ নাঈমের পর অভিজ্ঞ নাঈমের সেঞ্চুরি

ইনিংস সূচনা করতে নেমে যখন সেঞ্চুরি করে ১৯ বছর বয়সী মোহাম্মদ নাঈম, তখন উইকেটের অন্যপ্রান্তে ছিলেন তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা ৩২ বছর বয়সী অভিজ্ঞ নাঈম ইসলাম। অনুজ সতীর্থের দেখানো পথ ধরে পরে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন অভিজ্ঞ নাঈমও।

দুই নাঈমের সেঞ্চুরিতে ভর করে বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে চলতি প্রিমিয়ার লিগে এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩৫৭ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। জয়ের জন্য ৩৫৮ রান করতে হবে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবকে।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে নাঈম ও আজমীরের উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ১৭.২ ওভারে ১৩২ রান পায় রূপগঞ্জ। যেখানে আজমীরের অবদান ৪৭ বলে ৪৮ রান। আজমীর ফিফটি করতে ব্যর্থ হলেও তিনটি করে চার-ছক্কার মারে ৪০ বলে ফিফটি করেন তরুণ নাঈম।

দ্বিতীয় উইকেটে এ তরুণের সঙ্গে জুটি বাঁধতে আসেন অধিনায়ক নাঈম ইসলাম। অভিজ্ঞ নাঈমকে সঙ্গে পেয়ে মারমুখী খেলা চালিয়ে নেয়ার সাহসটাও পেয়ে যান তরুণ নাঈম। মাত্র ৮১ বলে তুলে নেন নিজের লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। শতরান করতে ৮টি চারের সঙ্গে ৫টি ছক্কা হাঁকান তিনি।

ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করা তরুণ নাঈমের ইনিংস থামে ১২২ রানে। মাত্র ১০৮ বলের ইনিংসটিতে ৮টি চারের সঙ্গে ৬টি বিশাল ছক্কা হাঁকান নাঈম। তরুণ নাঈম ফিরে যাওয়ার পর নিজের সেঞ্চুরি তুলে নেন অভিজ্ঞ নাঈম। দুজনের জুটি ছিলো ৯৩ রানের।

মোহাম্মদ নাঈমের মতোই ঝড়ো গতিতেই সেঞ্চুরি করেন নাঈম ইসলাম। ক্যারিয়ারের ৯ম লিস্ট ‘এ’ সেঞ্চুরিটি করেন ৯০ বলে, ১০ চারের সঙ্গে ২ ছক্কার মারে। শেষপর্যন্ত নাঈম আউট হন ইনিংসের শেষ ওভারের চতুর্থ বলে। আউট হওয়ার আগে ৯৮ বলে ১০৮ রান করেন তিনি।

তরুণ-অভিজ্ঞ দুই নাঈমের সেঞ্চুরির সঙ্গে রিশি ধাওয়ানের ২৩ বলে ৩২ রানের ইনিংস মিলিয়ে চলতি প্রিমিয়ার লিগে এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩৫৭ রানের সংগ্রহ পেয়েছে রূপগঞ্জ। শাইনপুকুরের পক্ষে বল হাতে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন সুজন হাওলাদার, দেলোয়ার হোসেন এবং হামিদুল ইসলাম।

Print Friendly, PDF & Email