Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিরোধীদলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর জানাজা অনুষ্ঠিত

  ঢাকা, ১৫ জুলাই, ২০১৯ খ্রি.

জাতীয় সংসদের ২১ রংপুর ৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, একাদশ জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা, সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর জানাজা আজ জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজার টানেলের নিচে অনুষ্ঠিত হয়। তিনি গতকাল ১৪ জুলাই ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। তিনি স্ত্রী, তিনপুত্র ও এক কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ জানাজায় শরিক হন এবং হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এর কফিনে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

 এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে তাঁর সামরিক সচিব, জাতীয় সংসদের স্পীকারের পক্ষে সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস, ডেপুটি স্পীকার মো: ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ, জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের দলীয় নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এর কফিনে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

মরহুমের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন তাঁর সহধর্মিনী বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ এমপি ও তোফায়েল আহমেদ এমপি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর সংক্ষিপ্ত জীবন বৃত্তান্ত পাঠ করেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি। পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন মরহুমের ছোট ভাই গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি ।

জানাজায় শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি, কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি এমপি, মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, ফজলে নূর তাপস এমপি, শামসুল হক টুকু এমপি, এ বি তাজুল ইসলাম এমপি, কর্ণেল অব. ফারুক খান এমপি, এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি, মেজর জেনা. অব. সুবিদ আলী ভূঁইয়া এমপি, মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি, আব্দুস সোবহান গোলাপ এমপি, কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, সৈয়দ আবু হাসান বাবলা এমপি, মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমদ, এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, দলীয় নেতৃবৃন্দ, সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শরিক হন।

Print Friendly, PDF & Email