Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

বনার্তদের মাঝে শুকনা খাবার ও হাইজিন কিটস্ বিতরণ করছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

জাতীয় সদর দপ্তরসহ ৩২ জেলার কর্মকর্তা – কর্মচারীদের ছুটি বাতিল।। শুক্র ও শনিবার অফিস খোলা

দেশের বন্যা কবলিত সবকয়টি জেলার দুর্গত জনগণের জন্য কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তরের সহায়তায় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত জেলা গুলিতে রেড ক্রিসেন্ট জেলা ইউনিটের পক্ষ থেকে বনার্তদের মাঝে শুকনা ও রান্না করা খাবার, হাইজিন কিটস্, নিরাপদ পানি, তারপলিনসহ নিত্যেপ্রয়োজনীয় জিনিসাদি বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। রাঙ্গামাটি জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত ৪০০ পরিবারের মাঝে হাইজিন কিটস ও সুনামগঞ্জে ১০০ পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও বান্দরবন ১০০ পরিবার, সিলেট ২০০ পরিবার এবং জামালপুরের ৫০০ পরিবাররের মাঝে শুকনা খাবার ও ফুড প্যাকেজ বিতরণের প্রস্তুতি রয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে লালমনিরহাট জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত সদর উপজেলার খোলাহাটি গ্রামের ১৫০ পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়।

এদিকে, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মগবাজারস্থ জাতীয় সদর দপ্তর ও বন্যা কবলিত ৩২ জেলার জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও তাৎক্ষণিক রেসপন্সের সুবিধার্থে শুক্র ও শনিবার অফিস খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষ।

সোসাইটির ডিজাস্টার রেসপন্স বিভাগ জানায়, বন্যা পরবর্তী ক্ষতিগ্রস্ত জনগনকে চিকিৎসাসেবা প্রদানে প্রস্তুত রাখা হয়েছে মেডিকেল টিম ও প্রয়োজনীয় ওষুধ। এছাড়াও প্রস্তুত রাখা হয়েছে ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স টিম (NDRT), ন্যাশনাল ডিজাস্টার ওয়াটসন রেসপন্স টিম (NDWRT), ইউনিট ডিজাস্টার রেসপন্স টিম (UDRT) টিমের সদস্যসহ ক্ষতিগ্রস্ত জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবকদের। সার্বক্ষণিক ক্ষয়ক্ষতির তথ্য সংগ্রহের জন্য সোসাইটির মগবাজারস্থ জাতীয় সদর দপ্তরে কাজ করছে “বিডিআরসিএস কন্ট্রোল রুম” এবং কন্টিনজেন্সি প্লান এক্টিভেট করা হয়েছে। সবধরনের তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেন +০০৮৮-০২-৯৩৫৫৯৯৫ (সরাসরি), ০১৭২০৯৭৭৮৭৭, ০১৮১১৪৫৮৫২৪, PABX# ৯৩৩০১৮৮, ৯৩৩০১৮৯, ৯৩৫০৩৯৯ -২৮২ এই নম্বরে। এছাড়াও প্রতিনিয়ত আপডেট Situation Report সোসাইটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার সোসাইটির কনফারেন্স কক্ষে “বন্যা” পরিস্থিতি মোকাবিলায় করণীয় শীর্ষক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন, সোসাইটির উপ-মহাসচিব মো: রফিকুল ইসলাম, ডিজাস্টার রেসপন্স বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো: বেলাল হোসেনসহ বিডিআরসিএস এর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

সোসাইটির মহাসচিব জনাব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি প্রস্তুত রয়েছে। ইতোমধ্যে জরুরী সহায়তা হিসেবে শুকনা ও রান্নাকরা খাবার ও হাইজিন কিটস্ বিতরণ করা হয়েছে। বন্যাকালিন এবং বন্যা পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য জরুরী সাড়া প্রদানকারী টিমসহ সকল কর্মকর্তাকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় তহবিল সংগ্রহের লক্ষ্যে “ডিজাস্টার রিলিফ ইমারজেন্সি ফান্ড(DREF) এর জন্য ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ রেড ক্রস এন্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজ(IFRC) মাধ্যমে চালু করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email