Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

পতেঙ্গায় জমে উঠেছে পশুর বাজার

পবিত্র ঈদুল আযহার আর মাত্র দুইদিন বাকি। বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে জমে উঠেছে পতেঙ্গা এলাকার কাটগড় ও স্টিলমিলস বাজারের পশুরহাট। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে গরু ও ছাগলের বেচাকেনার ধুম। বেপারিদের চোখে মুখে ফুটে উঠেছে আনন্দের ছাপ। নায্য মুল্যে পশু ক্রয় করতে পেরে ক্রেতারাও খুশি।
ফরিদপুর থেকে গরু নিয়ে এসেছেন বেপারি মো. লাল মিয়া বলেন, গত দু’দিন আগে ছোট ও বড় ৮টি গরু বিক্রি করেছি। আজ শুক্রবার সকাল থেকে ১১ টি গরু বিক্রি হয়েছে। আল্লাহর রহমতে আর ৬ টি গরু বিক্রি হলে বাড়ী চলে যাব।
রংপুর থেকে আসা বেপারি মোস্তফা বলেন, ৩০ টি গরু নিয়ে স্টিলমিলস বাজারে এসেছি অল্প লাভে গরু বিক্রি করে দিচ্ছি। ক্রেতাদেরও চাহিদা বেশি । ইজারাদারদেও আন্তরিকতায় এবং প্রশাসনের সহযোগিতায় কোন ঝামেলা ছাড়ায় বেশ ভাল গরু বেচা কেনা হচ্ছে আজ।
স্টিলমিলস বাজারের ইজারাদার কাজী আনোয়ার হাফিজ বলেন, গত দু’দিন চেয়ে শুক্রবার পশু বেচকেনার ধুম পড়েছে। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রতিদিন এখনও ট্রাকে ট্রাকে গরু আসছে । কম দামে ক্রেতারা ভাল গরু ক্রয় করছে। ক্রেতাবিক্রেতা কারও কোন অভিযোগ নেই।
কাটগড় পশুরহাট ইজারাদার হাজী মো. আবুল হোসেন বলেন, প্রশাসনের সড়ক থেকে উচ্ছেদের ঘটনায় একটু ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার হাটে প্রচুর ক্রেতার সমাগম। সকাল থেকে কয়েক’শ গরু বিক্রি হয়েছে । আবহাওয়া ভাল থাকলে বেচা কেনা ভালই হবে।
পতেঙ্গা থানার ওসি উৎপল বড়–য়া এই প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, পশু বাজারে সার্বক্ষনিক দিনে ও রাতে আমাদের পুলিশ ফোর্স রয়েছে। ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের সুবিধার্থে জাল টাকা সনাক্ত করণে বাংলাদেশ ব্যাংকের বুথও আছে। যে কোন অনিয়ম রুখতে পুলিশ কন্ট্রোলরুম খোলা রয়েছে। তবে এখনও শুক্রবার পর্যন্ত আমাদের কাছে কোন ধরনের অভিযোগ আসেনি।

Print Friendly, PDF & Email