Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

চুয়াডাঙ্গায় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

 

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এবং জেলা জজ আদালতের সহকারি পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম শফিকে (৫৬) কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেলবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাতেই তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এ হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ইতিমধ্যেই চার জনকে আটক করেছে।

এদিকে অ্যাডভোকেট শফির উপর হামলার প্রতিবাদে রবিবার জেলা আইনজীবী সমিতি প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন ও আদালত বর্জন কর্মসূচি পালন করেছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবির জানান, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম শফি রেলবাজার এলাকার একটি মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হয়ে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। এসময় একদল অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্ত অতর্কিতে তার উপর হামলা চালায়। তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। কারা কেন এ হামলা করেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

পুলিশ এ হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে রাতেই চার জনকে আটক করেছে। তদন্তের স্বার্থে পুলিশ তাদের নাম পরিচয় জানায় নি।
এদিকে, অ্যাডভোকেট শফির উপর হামলার প্রতিবাদে রবিবার বেলা ১১টায় আদালত চত্বরে প্রতিবাদ সভা ও মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। একই সাথে তারা রবিবার-সোমবার দুই কর্ম দিবস আদালত বর্জনের ঘোষণা দেন। প্রতিবাদ সভা সভাপতিত্ব করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুর রশিদ মোল্লা।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মশিউর রহমান বলেন, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলামের মাথায় ও শরীরে বেশ কয়েকটি ধারালো অস্ত্রের আঘাত আছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email