Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ডা. কাজি রফিকুল হকের নাগরিক স্মরণসভায়-অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী তিনি অধ্যাপনায় নিভৃত ছিলেন

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর সাবেক টেজারার অধ্যাপক ডা. কাজি রফিকুল হক-পি.এইচ.ডি স্মরণে নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, তিনি উচুঁ মাত্রায় অধ্যয়নকারী ও অধ্যাপনায় নিভৃত ছিলেন আজীবন। একাধারে ৫০ বছর এনাটমির শিক্ষক থাকাকালে একজন বিজ্ঞ শিক্ষক হিসেবে বাংলা, ইংরেজি, আরবি, উর্দূ, হিন্দী এবং মেডিক্যাল টেকনিক্যাল বিষয়ে সুপন্ডিত ছিলেন তিনি। উনার টেবিলে সবসময় বই, পত্রিকা এবং ধর্মীয় গ্রন্থ ভরপুর ছিল। উনার ইংরেজি উচ্চারণ ও উপস্থাপনা চমৎকার ছিল। তিনি দেশি-বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে একজন শিক্ষক ও অভিভাবক হিসেবে প্রিয় ছিলেন। তিনি ইউএসটিসি’র এনাটমি ডিপার্টমেন্টের ২৫ বছর চেয়ারম্যান থাকাকালে মেডিক্যাল শিক্ষার এনাটমির ও বেসিক বিষয়সমূহের বিভাগের লিডার হিসেবে নিষ্ঠাবান এবং পদ মর্যাদার সম্মান সবসময় অক্ষুন্ন রেখেছেন।
উক্ত নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর সাবেক ভিসি অধ্যাপক ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়ুয়া বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন জ্ঞানী, গুণী, বিনয়ী, মহৎ, উদার, অসম্প্রাদায়িক এবং নিবেদিত শিক্ষকরূপে তিনি দিপ্তীময় সর্বজন শ্রদ্ধেয়। দেশি-বিদেশী ছাত্র, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট তিনি পরম সম্মানিত, পরিক্ষিত, বিশ্বস্ত এবং সর্বজন নন্দিত ছিলেন। প্রতিষ্ঠানটির যে কোন বড় সংকটে তিনিই হাল ধরেছেন।
তিনি আরো বলেন, চিকিৎসা পেশার নবীন বরিত ছাত্র-ছাত্রীদের ডা. কাজি রফিকুল হক স্মরণ করিয়ে দিতেন পেশার শ্রেষ্ঠত্ব এবং মহিমা। বার বার উচ্চারণ করতেন পৃথিবীর অনেক প্রান্তে এমনকি বাংলাদেশেও ডাক্তারগণকে আল্লাহর পরে একজন সম্মানিত পেশাজীবি হিসেবে মর্যাদাদান এবং কর্যক্ষেত্রে গণ্য করা হয়। তিনি উদ্যমী মেধাবী সন্তানদের স্মরণ করিয়ে দিতেন পরিশ্রম, ধৈর্য্য, ঐকান্তিকতা এবং গভীর মনোযোগের সাথে চিকিৎসাশা¯্রে জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জন করে মানুষের মন ও হৃদয় জয় করতে হবে।
উপরোক্ত নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে স্বাগত বক্তব্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর প্রো-ভিসি অধ্যাপক নুরুল আবছার বলেন, অধ্যাপক ডা. কাজি রফিকুল হক ছিলেন আমার আমাদের পরম শ্রদ্ধাভাজন। প্রতিষ্ঠানের দূর্যোগকালীন সময়কালে সবপক্ষের জন্য তাঁর দরজা খোলা ছিল। তিনি শিক্ষক, অভিভাবক, কর্তৃপক্ষ, দেশি-বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী, প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলের আস্থাভাজন ছিলেন।
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর (ইউএসটিসি’র) সাবেক এই নিভৃতচারী শিক্ষক স্মরণে এক নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল গতকাল ৪ অক্টোবর ২০১৯, রোজ শুক্রবার বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন নাগরিক স্মরণসভা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট লায়ন আলহাজ মোহাম্মদ সলিমুল্লাহ।
সন্দ্বীপ অঞ্চলে শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে অঙ্গীকারবদ্ধ ‘সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ’ পত্রিকার আয়োজনে উক্ত নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক আ.ন.ম আবদুল মোক্তাদির, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক নির্বাচিত সভাপতি অ্যাডভোকেট এ.এম. আনোয়ারুল কবির, সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের জিএম আবুল কালাম আজাদ, জনতা ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক ডিজিএম আবুল কাসেম, সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সাবেক সভাপতি এনায়েত উল্লাহ, সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সাবেক সফল আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর আলম, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডা. রফিকুল মাওলা, বিশিষ্ট আইনজীবি যথাক্রমে মো: ইমলাক ও সেকান্দর বাদশা।
সন্দ্বীপ অঞ্চলে পাঠকের আস্থায় শীর্ষে ‘সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ’ পত্রিকার সম্পাদক অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান-এর সঞ্চালনায় আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাবেক সীতাকুন্ড উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ আলহাজ আ.ফ.ম ফোরকান উদ্দিন খান, সন্দ্বীপ এডুকেশন সোসাইটি চট্টগ্রামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহাদাত হোসেন, লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রাম সন্দ্বীপের সাবেক সভাপতি শামসুল আলম, সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান ফরহাদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর এনাটমি ডিপার্টমেন্টের সহযোগি অধ্যাপক ডা. সুলতানা রুমা আলম, ইউএসটিসি’র ইন্টার্ণ ডক্টরর্স এসোসিয়েশনের আহ্বায়ক ডা. মোস্তফা সাদমান সাকিব, সদস্য সচিব ডা. রাদ মোমিন চৌধুরী, ইউএসটিসি’র মেডিক্যালের শেষ বর্ষের ছাত্র মুনতাসির আহমেদ কাদেরী ও ডা. কাজি রফিকুল হকের ভাইপো কাজি জিয়া উদ্দিন সোহেল।
নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে বিশিষ্টজনদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগের ডা. মাজেদ সুলতান, ইউনিয়ন ইন্স্যুরেন্স কো: লি:’র ডিএমডি ইসমাইল মারুফ, সাপ্তাহিক আলোকিত পত্রিকার উপদেষ্টা কারিমুল মাওলা লিটন, সাবেক প্রধান শিক্ষক আলাউদ্দিন, অধ্যাপক শামসুল কবির শামিম, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক অ্যাডভোকেট তসলিমুল আলম, কাজি আফাজ উদ্দিন আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো: আনোয়ার হোসেন, সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কো: লি:’র এএমডি মাওলানা আলাউদ্দিন, অ্যাডভোটেক মোস্তফা, রেজাউল করিম মহসিন, সৈয়দ মো: মুছা, খন্দকার আশরাফুল বারী পাপ্পু, লায়ন আবু ছালেহ, শিপক কুমার নন্দী, হোসেন মিন্টু, রাজিব চক্রবর্তী প্রমুখ।
নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল বাস্তবায়ন কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ মো: কামাল পাশা, ডা. আমির হোসেন, কাজী ইকবাল আজম, মাস্টার আবদুল কাইয়ুম, ডা. ইসরাত জাহান সানজিলা, কাজি মুসলিম উদ্দিন ও অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন সাঈদ।
উক্ত নাগরিক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন, কাজি তালিমুল হক এবং দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন হাফেজ মো: রিয়াজ উদ্দিন।
উল্লেখ্য, অধ্যাপক ডা. কাজি রফিকুল হক-পি.এইচ.ডি ছিলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এর সাবেক ভি.সি (এ্যাক্টিং), প্রো-ভি.সি (এ্যাক্টিং), পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতালের মহাপরিচালক, জনসেবা ফাউন্ডেশন প্রফেসর অব এনাটমি এবং ‘সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ’ পত্রিকার অন্যতম উপদেষ্টা।

Print Friendly, PDF & Email