Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

আর্জেন্টিনার সামনে সেই জার্মানি

বড় আসরে বরাবরই আর্জেন্টিনার দুঃস্বপ্নের এক নাম জার্মানি। সর্বশেষ বিশ্বকাপের (২০১৪) স্মৃতি তো এখনও দগদগে ঘা হয়ে আছে আর্জেন্টাইন ভক্তদের মনে। এই জার্মানির কাছে হেরেই হাত ছোঁয়া দূরত্ব থেকে শিরোপাস্বপ্ন ভাঙে লিওনেল মেসিদের।

তার আগের দুই বিশ্বকাপেও একই চিত্র। জার্মানির মুখোমুখি হওয়া মানেই যেন আর্জেন্টিনার বিদায়। যান্ত্রিক ফুটবলের সেই দলটির সামনে আরও একবার আলবিসেলেস্তেরা। আজ (বুধবার) বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মাঠ সিগনাল ইদুলা পার্কে আতিথেয়তা নেবে আর্জেন্টিনা। তবে এই ম্যাচে খেলতে পারছেন না দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি।

যদিও প্রীতি ম্যাচ। কিন্তু বড় দুই দলের লড়াই, আলাদা একটা উত্তেজনা তো থাকছেই। আর বড় আসরে গত কয়েকবার জার্মানির কাছে হোঁচট খেলেও আর্জেন্টিনা কিন্তু প্রীতি ম্যাচে বরাবরই ভালো খেলে জার্মানদের বিপক্ষে। ২০১৪ সালে বিশ্বকাপে শিরোপা খুয়ানোর পরপরই এই জার্মানির বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলতে নেমে ৪-২ গোলে জিতেছিল মেসির দল।

এই ম্যাচে অবশ্য আর্জেন্টিনা পূর্ণ শক্তি নিয়ে মাঠে নামতে পারছে না। নিষেধাজ্ঞার কারণে মেসি নেই। বিশ্রামে আছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া আর সার্জিও আগুয়েরোও।

মেসির অনুপস্থিতিতে আক্রমণের মূল দায়িত্ব থাকবে তরুণ পাওলো দিবালার কাঁধে। সঙ্গে দারুণ ছন্দে থাকা ইন্টার মিলান ফরোয়ার্ড মার্টিনেজ তো আছেনই।

অপরদিকে, ইনজুরি সমস্যায় পূর্ণশক্তির দল মাঠে নামাতে পারছে না জার্মানিও। চোটের কারণে আগে থেকেই দলের বাইরে মিডফিল্ডার টনি ক্রুস, লেরয় সানে ও লেয়ন গোরেটস্কা, ডিফেন্ডার আন্টোনিও রুডিগার ও মাথিয়াস গিন্টার ও ফরোয়ার্ড টিমো ভের্নার।

ঠান্ডাজনিত সমস্যায় আর্জেন্টিনার বিপক্ষে খেলতে পারবেন না টাহ। মাংশপেশির চোট কাটিয়ে উঠতে পারেননি গিনদোয়ানও। সবমিলিয়ে দ্বিতীয় সারির এক দল নিয়েই ঘরের মাঠে লড়তে হবে জার্মানিকে।

Print Friendly, PDF & Email