Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

চট্টগ্রাম মহানগর আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআতের কাউন্সিল

দেশে সুশাসনের ঘাটতি থাকলে নৈরাজ্য
দুর্নীতি-অবক্ষয়গামিতা অসহনীয় হয়ে ওঠে

দুর্নীতির ভয়াবহ বিস্তার, যুব সমাজের মাঝে বিরাজিত অবক্ষয়-অনৈতিকতার প্রাবল্য এবং ক্যাসিনো-জুয়ার রমরমা অবস্থাকে দেশে সুশাসনের অভাব ও মানবিক মূল্যবোধের ঘাটতিকে দায়ী করেছেন উলামা মাশায়েখ নেতৃবৃন্দ। সকল পর্যায়ের শিক্ষাঙ্গনে আদর্শ ও নৈতিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করে সামাজিক ও মানবিক মূল্যবোধে উজ্জীবিত প্রজন্ম গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়েছে। আজ ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ হলে আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার দ্বি-বার্ষিক কাউন্সিলে উলামা মাশায়েখ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, দেশ কতোটা রসাতলে যাচ্ছে, নৈতিকতা ও মূল্যবোধের ক্ষেত্রে দেশের যুব সমাজের পচন-পতন কতোটা ভয়াবহ রূপ লাভ করেছে এর বড় দৃষ্টান্ত সেলিম প্রধান ও স¤্রাটদের বেপারোয়া জীবনযাপন। অবক্ষয়-অনৈতিকতা, সাইবারক্রাইম, পর্নোগ্রাফি ও মাদকের হাতছানি থেকে দেশের সম্ভাবনাময়ী যুব-তরুণ সমাজকে বাঁচাতে আজ প্রয়োজন জাতীয় জাগরণ এবং শুভ শক্তির উজ্জীবন। দেশে সুশাসনের অভাব ও ঘাটতিই দুর্নীতি ও অবক্ষয়গামিতা অসহনীয় ওঠার মূল কারণ বলে উলামা মাশায়েখগণ মতব্যক্ত করেন। এই দুঃসহ অবস্থা থেকে উত্তরণে শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল সংস্কার ও পরিবর্তন চান তাঁরা। বক্তারা সুন্নি অঙ্গনে নতুন করে বিভক্তি ও অনৈক্য সৃষ্টির ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত চট্টগ্রাম মহানগর শাখার কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আল্লামা শাহ্ নূর মোহাম্মদ আলকাদেরীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব অধ্যক্ষ আল্লামা জামেউল আখতার আশরাফির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে প্রধান অতিথি ছিলেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদরাসার শায়খুল হাদিস আল্লামা হাফেজ সোলাইমান আনসারী। এতে উদ্বোধক ছিলেন আনজুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক গবেষক আল্লামা এম.এ মান্নান। মুখ্য আলোচক ছিলেন ছোবহানিয়া আলিয়া মাদরাসার শায়খুল হাদিস আল্লামা কাজী মঈন উদ্দিন আশরাফি। প্রধান অতিথি আল্লামা সোলাইমান আনসারী বলেন, এভাবে ভয়াবহ নৈতিক অবক্ষয়গ্রস্তার মধ্যে একটি দেশ চলতে পারে না। দেশ ও জাতির আশা ভরসার প্রতীক যুব সমাজের এই অধঃগামিতা দেখে আলেম সমাজ আর নিশ্চুপ থাকতে পারে না। আলেম সমাজকে আজ দিশারীর ভূমিকা পালন করে যেতে হবে। দেশ ও সমাজ থেকে অনাচার-দুর্নীতি-অবক্ষয়ের শেকড় উপড়ে ফেলতে হক্কানি আলেম সমাজকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি। উদ্বোধক আল্লামা এম.এ মান্নান বলেন, মাদক-জুয়া-ক্যাসিনো যুব সমাজকে সীমাহীন বিপথগামিতার দিকে ঠেলে দিয়েছে। এই সর্বনাশা জাতীয় ব্যাধি থেকে দেশবাসী আজ পরিত্রাণ চায়। আলেম সমাজের সোচ্চার ও দায়িত্বশীল ভূমিকা আজ জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্মিলিত প্রতিবাদ ও প্রতিরোধের মাধ্যমে এই দুঃসহ অবস্থা থেকে মুক্তির পথ খুঁজতে হবে। তিনি সুন্নি অঙ্গনে ছদ্মবেশী মুনফেকদের থেকে সতর্ক থাকার তাগিদ দেন। মুখ্য আলোচক আল্লামা কাজী মঈন উদ্দিন আশরাফি বলেন, সুন্নি জমাতই হচ্ছে একমাত্র নাজাতপ্রাপ্ত দল। সুন্নি ছাত্র উলামা জনতাকে আজ আহলে সুন্নাতের অভিন্ন প্লাটফরমে এসে সুন্নিয়তচর্চাকে বেগবান করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা শাহ্ নূর মোহাম্মদ আলকাদেরী বলেন, নৈতিক শিক্ষার অভাবই মানবিক ও সামাজিক অবক্ষয়ের মূল কারণ। সকল পর্যায়ের শিক্ষা ব্যবস্থাকে এমনভাবে ঢেলে সাজাতে হবে যাতে নৈতিকভাবে উজ্জীবিত প্রজন্ম গড়ে ওঠে। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের এই প্লাটফরমে সুন্নি ওলামা ছাত্র জনতা আজ ঐক্যবদ্ধ আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সুন্নিদের মধ্যে বিভক্তি ও অনৈক্য সৃষ্টির পাঁয়তারা সর্বশক্তি দিয়ে রুখে দিতে হবে। অনুষ্ঠানে অতিথি ও আলোচক ছিলেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদরাসার প্রধান ফকিহ আল্লামা মুফতি কাজী আবদুল ওয়াজেদ, ছোবহানিয়া আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা হারুনুর রশিদ, জামেয়ার উপাধ্যক্ষ আল্লামা ড. লিয়াকত আলী, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার মুহাদ্দিস আল্লামা হাফেজ আশরাফুজ্জামান আলকাদেরী, ছোবহানিয়া আলিয়া মাদরাসার উপাধ্যক্ষ আল্লামা জুলফিকার আলী চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গির আলম চৌধুরী,অধ্যক্ষ আল্লামা বদিউল আলম রিজভী, অধ্যক্ষ মাওলানা নুরুল ইসলাম জেহাদি, উপাধ্যক্ষ আল্লামা আবদুল আজিজ আনোয়ারী, অধ্যক্ষ আল্লামা আবুল কালাম আমিরী, উপাধ্যক্ষ আল্লামা জালাল উদ্দিন ফারুকী, আল্লামা সৈয়দ ইউনুচ রজভী, অধ্যক্ষ মাওলানা রিদুয়ানুল হক হক্কানি, আল্লামা ড. মুহাম্মদ মতিউল ইসলাম, আল্লামা গোলাম মোস্তফা মোহাম্মদ নুরুন্নবী, আল্লামা মাজহারুল ইসলাম নেজামী, আল্লামা নুরুল আবছার কাদেরী, অধ্যাপক অহিদুল আলম, রাজনীতিবিদ মুহাম্মদ নঈমুল ইসলাম, আল্লামা আহমদুল্লাহ ফোরকান খান কাদেরী, নাছির উদ্দিন মাহমুদ, মাওলানা আশরাফ হোসাইন, লেখক-গবেষক মাওলানা জহুরুল আনোয়ার, অধ্যাপক মাওলানা জিয়াউল হক রিজভী, রাজনীতিবিদ মাস্টার আবুল হোসেন, মাওলানা হারুনুর রশীদ চৌধুরী, মাওলানা গিয়াস উদ্দিন নেজামী, মাওলানা সোহাইল উদ্দিন আনসারী, রাজনীতিবিদ সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম, যুবনেতা মুহাম্মদ হাবিবুল মোস্তফা সিদ্দিকী, লেখক জসিম উদ্দীন মাহমুদ, মাসিক প্রথম বসন্তের প্রকাশক ফজলুল করিম তালুকদার, সাংবাদিক আ ব ম খোরশিদ আলম খান, মাওলানা হাফেজ গোলাম কিবরিয়া, ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল ইসলাম, ছাত্রনেতা মারুফ রেজা, মাওলানা তারেকুল ইসলাম, মাওলানা সৈয়দুল হক সাঈদ কাজেমী, মাওলানা এমদাদুল ইসলাম কাদেরী, সংগঠক আবদুল করিম সেলিম, অধ্যাপক আমিন উল্লাহ, মাওলানা আবদুন নবী আলকাদেরী, মাওলানা সিরাজুল মুস্তফা সিদ্দিকী, মাওলানা মুখতার আহমদ রিজভী, মাওলানা আবুল কাশেম তাহেরী, অধ্যক্ষ মাওলানা আবু ছাদেক রিজভী, মাওলানা নুরুল করিম রিজভী শায়ের মাছুমুর রশীদ কাদেরী, প্রমুখ। কাউন্সিলরদের সর্বসম্মতিক্রমে আল্লামা নুর মোহাম্মদ আলকাদেরী, সভাপতি, অধ্যক্ষ আল্লামা জামেউল আখতার আশরাফী সাধারণ সম্পাদক, মাওলানা আবদুন নবী আলকাদেরী কে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট মহানগর আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের নতুন কমিটি গঠন করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email