Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

এসডিজির লক্ষ্যপূরণে যুবদের উদ্ভাবনী শক্তি কাজে লাগাতে হবে– স্পীকার

ঢাকা, ০৬ নভেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, এসডিজি-র লক্ষ্য পূরণে যুব সমাজের অবদান রাখার সুযোগ করে দিতে হবে। ‘কেউ পিছিয়ে থাকবে না’ এ স্লোগানের বাস্তবায়নে যুবশক্তির ভূমিকা অনস্বীকার্য। যুবদের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে তাদের সৃজনশীল কর্মে অংশগ্রহণ, সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া ও উন্নয়নে যুবদের সম্পৃক্ত করতে হবে। উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় যুবদের কর্মপরিকল্পনাকে অন্তর্ভুক্ত করলে এসডিজি লক্ষ্য পূরণ সহজ হবে।

তিনি আজ বুধবার রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়-এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত “টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়নে যুবদের অংশগ্রহণ-এসডিজি ফর দ্য ইয়ুথ, বাই দ্য ইয়ুথ” শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন।

স্পীকার বলেন, যুবকদের শক্তি, প্রত্যাশা ও সামর্থ্য-এর মধ্যে সমন্বয় ঘটিয়ে তাদের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে। এতে করে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, মাদকের বিরুদ্ধে আন্দোলন, বৃক্ষরোপণ অভিযানের মত সামাজিক কর্মসূচিই শুধু নয়, বরং দুর্যোগ প্রশমন ও জলবায়ু পরিবর্তনের মত বৈশ্বিক বিষয়েও তারা অবদান রাখতে পারবে। এসডিজি-র লক্ষ্য পূরণে সরকারের পাশাপাশি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদও কার্যকর ভূমিকা রাখছে।

যুগোপযোগী এমন একটি কর্মশালা আয়োজনের জন্য স্পীকার আয়োজকবৃন্দকে ধন্যবাদ জনিয়ে বলেন, এমন সৃজনশীল কর্মশালা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। এ ধরনের আয়োজন যুবসমাজকে সৃষ্টিশীল কাজে অনুপ্রাণিত করবে।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ। যুবসমাজের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যুবসমাজকে যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তোলার জন্য বাজেটে বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হয়েছে। এভাবে উন্নয়নের মূলধারায় তাদেরকে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মোঃ নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)-এর সভাপতি ড. রুবানা হক ও সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মোঃ আবুল কালাম আজাদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট সামাজিক ব্যক্তিবর্গ, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ, গণমাধ্যমকর্মীসহ গণ্য-মান্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন। উক্ত কর্মশালায় বিভিন্ন শ্রেণীর যুবকগণ অংশগ্রহণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email