Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

চিটাগাং চেম্বারে ব্যবসায়ীদের সাথে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

চিটাগাং মেট্রোপলিটন সপ ওনার্স এসোসিয়েশন’র আয়োজনে চট্টগ্রামের ব্যবসায়ীদের সহিত ভ্যাট সংক্রান্ত বিষয়ে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, চট্টগ্রাম এর কমিশনারের সাথে এক মতবিনিময় সভা ০৯ জানুয়ারি বিকেলে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়। এসোসিয়েশন’র নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ও চিটাগাং চেম্বার পরিচালক মোঃ অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন)’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, চট্টগ্রাম কমিশনার এনামুল হক এবং উদ্বোধক দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি মাহবুবুল আলম, চট্টগ্রাম জেলা দোকান মালিক সমিতির সভাপতি সালেহ আহমেদ সুলেমান, টেরী বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ওসমান গণি চৌধুরী, চিটাগাং ডেকোরেশন মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মোঃ শাহাব উদ্দিন, আখতারুজ্জামান সেন্টার ব্যবসায়ী সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল হোসেন, চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ সরঞ্জাম ব্যবসায়ী গ্রুপ’র সিনিয়র সহ-সভাপতি কুতুব উদ্দিনসহ বিভিন্ন এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। ব্যবসায়িক লেনদেনের বিভিন্ন স্তরে মূসকের হিসাব সম্পকির্ত তথ্য চিত্র উপস্থাপন করেন কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, চট্টগ্রাম’র অতিরিক্ত কমিশনার মাহবুবুর রহমান।

প্রধান অতিথি কমিশনার এনামুল হক বলেন-মূসক প্রদানের ব্যাপক আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও এই আইনের কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের মধ্যে অস্পষ্টতা আছে বলে জানান। তিনি দেশ গঠন ও সমৃদ্ধকরণে সকলকে স্ব-স্ব অবস্থান থেকে ভ্যাট দেয়ার আহবান জানান। কমিশনার চট্টগ্রামস্থ প্রত্যেক ব্যবসায়ী সমিতিকে তাদের সদস্যদের আগামী ৩১ জানুয়ারি ২০২০ সালের মধ্যে ভ্যাট নিবন্ধন ও রিটার্ণ দাখিলের দায়িত্ব নেয়ার অনুরোধপূর্বক অন্যথায় সরকারি আইন অনুযায়ী অনিবন্ধিতদের আইনের আওতায় আনবেন বলেও জানান। তিনি মূসক আদায়ের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে ২০টি ইসিআর মেশিন নির্দিষ্ট ২০টি প্রতিষ্ঠানে কর্মক্ষমতা নিরুপনে চালু করা হয়েছে বলে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে অবহিত করেন।

চিটাগাং চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন-ব্যবসায়ীরা সব সময় নির্বিঘেœ ব্যবসা পরিচালনা করতে চায়। ২০১৭ সালে সরকার আইন পাশ করেছিল। কিন্তু আমরা ব্যবসায়ীরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বুঝাতে সক্ষম হই যে, পর্যাপ্ত ইসিআর মেশিন আমদানিসহ সার্বিকভাবে এই আইন বাস্তবায়নের প্রস্তুতি পর্যাপ্ত নয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের অনুরোধে ২ বছরের জন্য এই আইন তখন স্থগিত করেন। আমরা কোন ধরণের হয়রানি ছাড়া ভ্যাট দিতে চাই। ভ্যাটের ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের কিছু কিছু আপত্তি রয়েছে। যেমনঃ ৫ বছরের পুরানো হিসাবের উপর নতুন করে ভ্যাট নির্ধারণ সম্ভব নয়। অনেক ক্ষেত্রে লৌহজাত ইত্যাদি পণ্য আমদানি পর্যায়ে ট্যাক্স ভ্যাট দেয়ার পরও বাজারে বিক্রয় করার সময় আবারও ভ্যাট ট্যাক্স দিতে হয়। এ বিষয়গুলো সুচারুরূপে সমাধান করা প্রয়োজন। ভারত, পাকিস্তানের জিডিপি যেখানে ৫% এর নীচে সেখানে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৮% এর উপরে যা সত্যি বিস্ময়কর। ‘ব্যবসায়ী বাঁচলে দেশ বাঁচবে’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে সবাই এক সাথে ইতিবাচকভাবে কাজ করলে দেশ আরো এগিয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। চেম্বার সভাপতি ভ্যাট ও ট্যাক্স সংক্রান্ত বিষয়ে ব্যবসায়ী ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনে অত্র চেম্বারে একটি হেল্প ডেস্ক চালু করা হবে বলে জানান।

চিটাগাং মেট্রোপলিটন সপ ওনার্স এসোসিয়েশন’র সভাপতি মোঃ অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন) বলেন-ব্যবসায়ীরা নতুন ভ্যাট ও এসডি আইন সম্পর্কে পুরোপুরি অবগত নন। ‘ভ্যাট দিব দেশ গড়ব’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আমরা ব্যবসা করি। ব্যবসায়ীরা যাতে কোন ধরণের হয়রানীর শিকার না হয় সেদিকে সংশ্লিষ্ট সকলকে লক্ষ্য রাখতে হবে। ব্যবসায়ীদেরকে ভ্যাট সম্পর্কে অবহিত করার লক্ষ্যে ভ্যাট কমিশনারের উপস্থিতিতে ব্যবসায়ী ও কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে এই মতবিনিময় সভা রাজস্ব আদায়ে অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি মনে করেন।

Print Friendly, PDF & Email