Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

যে ৬ ধরনের মানুষ আনন্দময় করে তোলে কর্মক্ষেত্রকে

আমাদের দিনের বেশ বড় একটা সময় আমরা কর্মক্ষেত্রে কাটিয়ে থাকি। কর্মক্ষত্রে আমাদের তৈরি হয় দ্বিতীয় একটি পরিবার।

দ্বিতীয় পরিবারের সবার সাথে ভালো মন্দ মিলিয়েই চলে কর্ম জীবন। কিন্তু পরিবারে যেমন ভিন্ন মন মানসিকতার মানুষজন থাকেন ঠিক তেমনই কর্মক্ষেত্রেও ভিন্ন মন মানসিকতার মানুষের দেখা মেলে।

মাঝে মাঝে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ পাওয়া যায় কলিগদের কাছ থেকে। আবার কোন কলিগের কাছ থেকে তেমন বন্ধুসুলভ আচরণ পাওয়া যায় না। কারো সাথে বন্ধুর মত সম্পর্ক তৈরি

হয় আবার কারো সাথে কিছুটা প্রতিযোগী মনোভাবের তৈরি হয়।

যে ৬ ধরনের মানুষ আনন্দময় করে তোলে কর্মক্ষেত্রকে

এরকম হাজারো ধরনের মানুষের দেখা মেলে কর্মক্ষেত্রে। মাঝে মাঝে বেশ মজাই লাগে প্রতিযোগী ও বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ। আবার মাঝে মাঝে বিরক্ত লাগে কলিগদের আচরনে। কিন্তু একটু চিন্তা ভাবনার

পরিবর্তন করে আপনি সকল কলিগদের নিয়েই কর্মক্ষেত্রকে করে তুলতে পারেন আনন্দময়। নেতিবাচক মানুষগুলোকেও একটু ইতিবাচক মনোভাবের সাথে দেখতে পারলেই কর্মক্ষেত্র হয় আনন্দময়।

বোকাসোকা ভালোমানুষ কলিগ
এই মানুষটি তার ভালোমানুষি স্বভাব দিয়ে কর্মক্ষেত্রের সবার খোঁজ খবর রাখেন। সাহায্য করেন সবাইকে। এতে করে তিনি নিজে কোন বিপদে পরলে বা

পড়ার সম্ভাবনা থাকলে তা মাথা পেতে নেন। স্বার্থপর ধরণের কলিগরা এই ধরনের কলিগদের কাছ থেকে অনেক সুবিধা ভোগ করে থাকেন। তারপরও এইসব ভালোমানুষ বোকাসোকা সব সময় হাসি খুশি থাকেন।

চামচা কলিগ
এই ধরনের কলিগরা বেশিরভাগ সময়ই বসের প্রিয়পাত্র হিসেবে পরিচিতি পান। কারন অফিসের অন্যান্য কলিগ ও কর্মচারীদের নানান ধরনের তথ্য একটু রঙ চং মাখিয়ে বসের সামনে উপস্থাপন করেন।

বসের সব ধরনের কথায় তার উপস্থিতি পাওয়া যায়। এই ধরনের কলিগদের কাজ কর্ম, হম্বি তম্বি সবই বসের সামনে হয়ে থাকে। বস চলে

গেলে এরা বেশ আয়েশ করে বসে থাকেন। যদিও এই ধরনের মানুষজন নিজেদের অনেক চালাক ভেবে থাকেন। তারপরও তিনি সকলের কাছেই হাসিরপাত্র হিসেবেই পরিচিত।

গুজব ছড়ানোয় ওস্তাদ কলিগ
তিলকে তাল করতে এই ধরনের কলিগদের জুড়ি নেই। একজনের মুখের কথা নানান ধরণের কথার ঝুড়িতে সাজিয়ে বাড়িয়ে অন্যদের সামনে উপস্থাপন করাই এদের কাজ। মাঝে মাঝে বিরক্ত লাগতে পারে

এদের কর্মকাণ্ডে। কিন্তু যেহেতু আপনি জানেনই যে এরা গুজব ছড়ানোয় ওস্তাদ তবে কেন শুধুশুধু গুজবে কান দিচ্ছেন? চুপচাপ বসে থেকে মজা নিন। বিরক্ত লাগবে না বরং বেশ আনন্দই লাগবে।

ফ্লার্ট করা কলিগ
এই ধরনের কলিগদের অফিসের মেয়ে কলিগদের ধারে কাছেই বেশী ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। বিরক্ত হয়ে অনেকে এদের থেকে দূরে থাকতেই বেশী পছন্দ করেন। কিন্তু এই কাজটি করার কোন দরকার নেই।

সে যদি আপনার আসে পাশে থেকে আপনার প্রশংসা করতে থাকে তাতে আপনারই লাভ। যদিও আপনি তার মনোভাব জানেন তারপরও তার এই প্রশংসা আপনার কনফিডেন্স বাড়াতে সাহায্য করবে।

খাদক কলিগ
প্রায় প্রতি অফিসেই কিছু ভোজনরসিক কলিগের দেখা পাওয়া যায়। খেতে ভালোবাসেন এই সব মানুষকে খুব সহজেই নানান মজার খাবারের লোভ দেখিয়ে অনেক কাজ হাসিল করে নিতে দেখা যায় স্বার্থান্নেসি

মানুষদের। বিপদে পড়ে গেলে চিন্তা করবেন না। মাঝে মাঝে আপনিও কিছু লোভনীয় খাবারের লোভ দেখিয়ে নিজেকে কোন বিপদ থেকে উদ্ধার করে নিতে পারবেন।

ব্যাকস্টাবার কলিগ
সকল ধরণের কলিগদের মধ্যে এই কলিগদের একটু বিপদজনক হিসেবে দেখা হয়। কারণ এরা সামনে মিষ্টি মধুর কথা বললেও পিছনে যেয়ে আপনার ক্ষতি করার জন্য উঠে পড়ে লেগে থাকে।

যতটা তাড়াতাড়ি সম্ভব এদের সাথে বন্ধুত্ব করে নিন। যদিও এরা বন্ধুও মানে না। তবুও আপনি তার সাথে খানিকটা সময় থাকলে তাআর চিন্তা ভাবনা সম্পর্কে কিছুটা হলেও ধরনা নিতে পারবেন।সুত্রঃ দৈনিক দেশ বিদেশ

Print Friendly, PDF & Email