Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে জলবায়ু স্থানচ্যুত মানুষের সমস্যা ও অধিকার বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত


জলবায়ু পরিবর্তন জনিত প্রাকৃতিক দূযোর্গে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে বিপুল সংখ্যক মানুষ চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার উপকূলবর্তী এলাকাসমূহ থেকে ঘরবাড়ি হারিয়ে স্থানচ্যুত হতে বাধ্য হচ্ছে। স্থানচ্যুত মানুষরা নতুন স্থানে বসবাস করলেও বিভিন্ন নাগরিক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এবং জীবনজীবিকার সংস্থান থেকে পিছিয়ে পড়ছে। জলবায়ু স্থানচ্যুত মানুষদের অধিকারভিত্তিক স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন ইপসা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছে। ইপসার চলমান কার্যক্রম সম্পর্কে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানদের অবহিতকরণের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের জলবায়ু স্থানচ্যুত মানুষের সমস্যা ও অধিকার বিষয়ক ইপসা এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
ইপসার প্রোগ্রাম ম্যানেজার ড. প্রবাল বড়–য়ার সভাপতিত্বে ১৬ নভেম্বর, রোজ সোমবার সকালে উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ছনুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হারুনুর রশীদ। অনুষ্ঠানে জলবায়ু স্থানচ্যুতি সমস্যা ও স্থানচ্যুত মানুষদের আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতির উন্নয়নে ইপসার কার্যক্রম নিয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রবাল বড়–য়া। জানানো হয় যে, ইতিমধ্যে জলবায়ু স্থানচ্যুত পরিবার গুলোকে এনজিও সংস্থার ইপসার পক্ষ থেকে বিভিন্ন ধরনের সহায়তা প্রদান করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতে কমিউনিটি ভিত্তিক কিছু ক্ষতিগ্রস্ত জলবায়ু স্থানচ্যুত মানুষকে পুনবার্সন করা হবে বলে জানানো হয়। ইপসার রিসেটেলম্যান্ট অফিসার জাকের হোসাইনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সচিব অরুন জয় ধর, সাংবাদিক আবু বক্কর বাবুল, সৈকত আচার্য্য, ইউপি সদস্য আবদুল কাদের, জসীম উদ্দিন, মো. ইউনুছ, নুরুল কাদের, মো. জাবেদ, সংরক্ষিত ইউপি সদস্যা শাহেদা বেগম, তাওহীদা পারভিন প্রমুখ।
মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, ‘প্রতিটি ঘূর্ণিঝড় ও দুর্যোগে বাঁশখালীর উপকূলীয় এলাকা গুলোতে মানুষের জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। উপকূল এলাকা সমূহের বিশেষ করে ছনুয়া, গন্ডামারা, বাহারছড়া, খানখানাবাদ ও সরল ইউনিয়নে ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডবে অনেক পরিবার স্থানচ্যুত হয়ে পড়ে। ওইসব স্থানচ্যুত মানুষদের জন্য পরিকল্পিত আবাসন, সুপেয় পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা অতীব জরুরী। ছনুয়া ইউনিয়নে পানি ও স্যানিটেশনের সমস্যা প্রকট তাই এনজিও সংস্থাসমূহকে পানি ও স্যানিটেশন সমস্যা নিয়ে কাজ করা উচিত বলে জানান বক্তারা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব হারুনুর রশিদ প্রকৃত স্থানচ্যুত মানুষ সনাক্ত করে ইউনিয়ন পরিষদ প্রশাসনের মাধ্যমে যাচাইপূর্বক পুনবার্সন প্রক্রিয়া করা উচিত এবং এই কাজে ইউনিয়ন পরিষদ সর্বাত্বক সহযোগিতা করবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

Print Friendly, PDF & Email